কুয়োর মধ্যে পড়ে গেল বানর ছানা, জীবন বাজি রেখে ও বুদ্ধিমওা দিয়ে তুলে নিয়ে আসলেন মা বানর, ইন্টারনেট তুলপাড় করেছে ভিডিওটি!

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের এ পৃথিবীতে বহু প্রজাতির পশুপাখি পাওয়া যায়। কিছু পশু পাখি আমরা গৃহপালিত পশু হিসেবে লালন পালন করে থাকি। এর মধ্যে অন্যতম গরু, ছাগল, মহিষ, ভেড়া, বানর, কুকুর, বিড়াল এবং বিভিন্ন জাতের পাখি। তবে আমরা শখের বসে অনেক পশু পাখি পালন করে থাকি।

চিড়িয়াখানার গেলে আমরা অনেক প্রজাতির পশুপাখি দেখে থাকি। এমন অজানা অনেক প্রাণী আছে যা চিড়িয়াখানায় আমরা দেখি তাদেরকে চিনতে পারে। চিড়িয়াখানার প্রাণী গুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে বানর। তারা আমাদেরকে বিভিন্নভাবে আনন্দ দেয়। সকল পশু পাখির মধ্যে বানর হচ্ছে গিয়ে যা মানুষকে প্রচুর পরিমাণে আনন্দ দেয়।

অনেকে সখের বসে বানায় নিজে বাড়িতে পালন করে। আমরা সচরাচর প্রায় বানর দেখে থাকি। ইন্টারনেটে দেখলে দেখা যায় বানরের কত মজার মজার কান্ড। তেমনি আজ আমরা আপনাদের ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া বানরের মজার ভিডিও সম্পর্কে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায় কোন মাসে মা বানর এবং তার সন্তানদের নিয়ে নিজেদের মনের মত করে খেলছে। একে অপরের সাথে আপন-মনে তাদের ভাষায় মতবিনিময় করছে। হঠাৎ করে বানর দুটো করে যায়। তৎক্ষণাৎ বানরের মা উদ্বিগ্ন হয়ে যায়। বাচ্চাগুলোর জন্য তার মনের অস্থিরতা বিরাজমান হয়।

মা বানরটি বুঝতে পারছিল না যে কীভাবে তার বাচ্চাদের গো থেকে তুলবে। সে বিচলিত হয়ে শুধু এদিক থেকে ওদিক ওদিক থেকে এদের বিচরণ করছিল।আমাদের মানবজাতির মধ্যে যেমন সন্তানেরা বিপদে পড়লে মায়েরা অস্থিরতা করে ঠিক তেমনি বানরটি করছিল। কারণ বানরটি সন্তান জন্ম দিয়ে মারা হয়েছে।

বলাই বাহুল্য যে পৃথিবীর সকল প্রজাতির প্রাণীর মায়েরাই সেরা হয়। কারণ সন্তানেরা যখন কোন বিপদে বা কষ্টে পড়ে তখন মায়েরাই সবার আগে ছুটে যায়। ঠিক তেমনই বানর দুটির মধ্যে পড়ার পর বানরটির মা বিচলিত হয়ে পড়ে। সে বুঝতে পারছিল না। মা বানরটি বুঝতে পারছিল না যে কিভাবে তার সন্তানদের রক্ষা করতে।

মা বানরটি হঠাৎই কুয়োর মধ্যে ঝাঁপ দেয়। ঝাঁপ দিয়ে তাদের বাঁচানোর চেষ্টা করে। অনেক চেষ্টা করেও তাদের উপর থেকে উপরে তুলতে পারছিল না। এমত অবস্থায় মা বানরটি কোথেকে তোলার জন্য তাদের ছানাকে কাঁধে তুলে নিয়ে উপরে উঠার চেষ্টা করে। এভাবে অনেকক্ষণ চেষ্টা করার পর মা বানরটি তাদের বাচ্চাদের তুলতে সফল হয়।

তবে এমা বানরটি তার একটি ছানাকে তুলতে পারলেও অপর ছানাকে তুলতে পারেনি। ঠিক তখনই একটি ছেলে এসে সেই অপর ছানাকে কোথেকে তুলে বাঁচিয়ে নেয়। এরপরে তাদের ভেজা শরীর মুছে তাদেরকে শুকিয়ে আগের মতো করে দেয়। বানরগুলো তাদের প্রাণ ফিরে পেয়ে আনন্দে আবার পুনরায় এদিক ওদিকে ছুটে বেড়ায়। একে অপরের সাথে খেলছে আনন্দ করছে যেন কিছুক্ষণ আগে তাদের সাথে ঘটে যাওয়া কোনো বিপদ ঘটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *