আবার সক্রিয় ঘূর্ণাবর্ত, আগামী ২৪ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস পশ্চিমবঙ্গের এইসব জেলায়।

নিজস্ব প্রতিবেদন: কলকাতা এবং তৎসংলগ্ন বেশ কিছু এলাকায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। প্রবল ঘূর্ণবাত এবং মৌসুমী অক্ষরেখার কারণে আবারো জলমগ্ন অবস্থা পশ্চিমবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকার।

পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকা যেমন কলকাতা, আরো বেশ কিছু জায়গায় যেমন – সংলগ্ন এলাকা হাওড়া, পূর্ব বর্ধমান, হুগলি, উত্তর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং নদীয়া জেলায় শুক্রবার ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, এ সমস্ত জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ এর ভ্রুকুটি দেখা যেতে পারে। আগামী ২৪ ঘন্টা আকাশ মেঘলা থাকবে। জায়গায় জায়গায় কয়েক পশলা বৃষ্টি হবার সম্ভাবনা রয়েছে।

আগামী দুই থেকে তিন ঘন্টার মধ্যে কলকাতা এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস আছে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। এই সমস্ত জেলাগুলির মধ্যে রয়েছে কলকাতা ছাড়াও হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনা, মুর্শিদাবাদ এবং পূর্ব বর্ধমান।

অন্যদিকে ইতিমধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এখনো পর্যন্ত হুগলির খানাকুল, হাওড়ার উদয়নারায়নপুর এবং আমতা ও পশ্চিম মেদিনীপুর ঘাটাল সম্পূর্ণরূপে জলের তলায় রয়েছে। এই সমস্ত জায়গায় কবে জল হবে সেই নিয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো রকম সদুত্তর দিতে পারছেনা রাজ্য সরকার এবং সেচ দপ্তর।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে, এই সমস্ত এলাকায় এখনো যে একেবারেই বৃষ্টিপাতের ভ্রুকুটি কেটে গেছে তা কিন্তু নয়। আজকের পূর্বাভাস রয়েছে হাওড়া এবং হুগলিতে বৃষ্টিপাত হতে পারে। কিন্তু আজকে পশ্চিম মেদিনীপুরে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা খুব ক্ষীণ।

তাই পশ্চিম মেদিনীপুরের জন্য কিছুটা রেহাই হলেও, হাওড়া এবং হুগলি আজকেও জলমগ্ন অবস্থায় থাকতে পারে। ঐ সমস্ত এলাকায় বন্যা পীড়িত মানুষের জলযন্ত্রণা এখনই কমছে না বলে জানিয়ে দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।